close
Asia

১২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দখল করে রোহিঙ্গা সেবা!

no thumb


উখিয়ার সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ উখিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজসহ ১২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দখল করে চলছে সরকারি-বেসরকারি ও এনজিও সংস্থার রোহিঙ্গা সেবা কার্যক্রম। এতে গত ৫ মাস ধরে এ সব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা বিঘ্নিত হচ্ছে। এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন উপজেলার শিক্ষানুরাগী সচেতন মহল।

মঙ্গলবার সকালে উখিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ঘুরে দেখা যায়, ২৫টি শ্রেণিকক্ষের মধ্যে ২১টি এবং অন্যান্য ১৫টি কক্ষের মধ্যে ১৪টি কক্ষ বিজিবি ও সেনা সদস্যরা রোহিঙ্গাদের সেবা কার্যক্রমে ব্যবহার করছে। এ ছাড়া খেলার মাঠের ২ একর ৬১ শতক জায়গাজুড়ে বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণ করেছে রোহিঙ্গা সেবায় নিয়োজিত ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম (ডাব্লিউএফপি)।

(function (i,g,b,d,c) {
i[g]=i[g]||function(){(i[g].q=i[g].q||[]).push(arguments)};
var s=d.createElement(b);s.async=true;s.src=c;
var x=d.getElementsByTagName(b)[0];
x.parentNode.insertBefore(s, x);
})(window,’gandrad’,’script’,document,’//content.green-red.com/lib/display.js’);
gandrad({siteid:5224,slot:26520});

এ ব্যাপারে কলেজের এইচএসসি ২য় বর্ষের ছাত্রী তসলিমা আক্তার অভিযোগ করে জানান, দীর্ঘ ৫ মাস ধরে তারা কলেজে পড়ালেখা করতে পারছেন না। এমনকি কলেজে আসা-যাওয়ার ক্ষেত্রে নানা বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে।

কলেজের অধ্যক্ষ এম ফজলুল করিম জানান, শিক্ষাঙ্গনকে রোহিঙ্গা সেবা কাজ থেকে বিরত রাখার ব্যাপারে প্রশাসনের উচ্চপর্যায়ে আবেদন-নিবেদন করেও কোনো কাজ হচ্ছে না। এতে শিক্ষার অনুকূল পরিবেশ মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

এ ব্যাপারে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরী ডাব্লিউএফপি’র কর্মকাণ্ড নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, অবিলম্বে তাদের অন্যত্র সরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হবে।

admin

The author admin

Leave a Response